Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on skype

করোনার বিরুদ্ধে ইতালির লড়াইটা ক্রমশ এক পেশে হয়ে পড়েছে। রোজ শ’য়ে শ’য়ে মানুষ মারা যাচ্ছে ইতালির বিভিন্ন শহর জুড়ে, তাতে বাদ পড়ছেন না ডাক্তাররাও। ইতিমধ্যে ইতালিতে করোনায় মৃত ৬১ চিকিৎসক, আক্রান্ত আরও অনেক। তাঁরা প্রত্যেকেই করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে শামিল হয়েছিলেন। প্রত্যেকেই ছিলেন ইতালির মেডিক্যাল টিমের সদস্য।

করোনা ভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় ইতালিতে ৮১২ জন মারা গিয়েছেন। মৃত ও আক্রান্তের সংখ্যা রোজ লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। এই নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা ১১ হাজার ছাড়িয়েছে। এর মধ্যেই রয়েছেন ৬১ জন মেডিক্যাল টিমের সদস্য।

তবে ১৫৯০ জন গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থও হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। কিন্তু ইতালিতে মৃতের সংখ্যা যে হারে বাড়ছে তাতে সেই সংখ্যাটা নিতান্তই কম।

ইতালির উত্তরাঞ্চলীয় শহর লম্বার্ডিয়া এখন মৃত্যুপুরী। স্বজনদের শেষ শ্রদ্ধা জানাতে কবর স্থানগুলোতেও মানুষ প্রবেশ করতে পারছেন না। শেষ দেখাটুকুও হচ্ছে না নিহত মানুষটির সাথে পরিবারের লোকজনের।

মিলানের বর্তমান ছবিটা হল খানিকটা এরকম। মারা যাওয়া মানুষের লাশ আর লাশ, এতো মানুষ মারা যাচ্ছেন যে মর্গেও জায়গা হচ্ছে না। মিলান আর লম্বার্ডিয়ায় হাসপাতাল ও বিশ্রামাগারে দিনরাত স্বজনদের ডাকাডাকি চলছে। কফিনগুলো তাৎক্ষণিকভাবে সরিয়ে নিতে হচ্ছে।

আত্মীয়স্বজনরা তাদের প্রিয়জনদের মুখটি শেষবারের মতো দেখতে যেতে পারছেন না। মৃতদেহের সৎকার করছে প্রশাসনের আধিকারিকরায়। ম্যাসিমো সেরাতো মিলানের অন্যতম বৃহত্তম ফিউনারেল সংস্থার নেতৃত্ব দেন। কথা প্রসঙ্গে তিনি জানান, “এমন ভয়ানক অবস্থা আমরা জীবনে কল্পনাও করিনি। এ যেন এক মৃত্যুপুরী”।

সেই মৃত্যুপুরীরই অপর প্রান্তে দাঁড়িয়ে ক্রমাগত লড়াই করে চলেছে চিকিৎসকেরা। দিন নেই, রাত নেই, এমনকি পরিবারও নেই। এখন ২৪টা ঘন্টা হাসপাতাল চত্বরেই কাটাচ্ছেন চিকিৎসকেরা। এই ভাবেই প্রতিটা মুহুর্ত করোনার বিষ পান করে চলেছেন তারা। আর তাতেই শহীদ এই ৬১ জন চিকিৎসক।

যদিও ভারতের পরিস্থিতি এখনও সেই পর্যায়ে পৌঁছায়নি অনন্য দেশের থেকে এখনও নিরাপদ স্থানেই রয়েছে ।

Share on facebook
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp