বয়ঃসন্ধিকালে সঠিক বৃদ্ধির জন্য প্রয়োজনীয় ডায়েট

বয়ঃসন্ধি হল এমন এক সময়, যখন বৃদ্ধির গতি হঠাৎ করে বেড়ে যায় এবং পিউবার্টির কারনে শরীরে নানা রকমের পরিবর্তন আসে। পিউবার্টির সাথে সাথে সেক্সুয়াল ম্যাচুরেশন খুব ধীরে ধীরে হতে পারে, আবার সমস্ত পরিবর্তন একই সাথে দেখা যেতে পারে।

বয়ঃসন্ধিকালে সঠিক বৃদ্ধির জন্য প্রয়োজনীয় ডায়েট মেনে চলা অত্যন্ত জরুরি, যাতে কোনোরকম সমস্যা বৃদ্ধির পথে বাঁধা হয়ে দাঁড়াতে না পারে।

স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস গড়ে তোলার পদ্ধতি

  • দিনে তিন টি মিল (প্রধান খাদ্য) এবং সাথে স্বাস্থ্যকর টিফিন করতে হবে
  • খাদ্যে ফাইবারের পরিমান বাড়াতে হবে এবং লবনের পরিমান কমাতে হবে
  • জল বা স্বাস্থ্যকর তরল পদার্থ বেশি পরিমানে খেতে হবে
  • পুষ্টিকর খাদ্য খেতে হবে
  • বয়ঃসন্ধি থাকা কোনো বালক বা বালিকার জন্য কিছু রান্না করলে সেটা ভাজার পরিবর্তে সেঁকে বা সিদ্ধ করে দিন
  • চিনির পরিমান কমিয়ে ফেলতে হবে

বয়ঃসন্ধিকালে সঠিক বৃদ্ধির জন্য প্রয়োজনীয় ডায়েট

  • প্রচুর পরিমানে সবজি, শিম ও ফল খেতে হবে।
  • অধিক পরিমাণে ডাল ও দানা জাতীয় খাবার খেতে হবে।
  • লিন মিট, মাছ, ডিম ইত্যাদি অবশ্যই খাবারের ভেতর রাখতে হবে।
  • খাদ্যতালিকায় রাখতে হবে দুধ, দই ও চিজ।
ডায়েট

যে ৫টি বিষয়ের ওপর আমাদের খেয়াল রাখতে হবে —

১) একটি স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস গড়ে তুলতে হবে, যাতে দীর্ঘদিন ধরে একটি সুস্থ জীবন যাপন করা যায়।

২) খাদ্যদ্রব্যের ভেতর পুষ্টির পরিমান, ঘনত্ব এবং বিভিন্নতার প্রতি নজর দিতে হবে।                              

৩) খাদ্যে সোডিয়ামের পরিমান কমাতে হবে, চিনি এবং স্যাচুরেটেড ফ্যাটের পরিমানও একদম কমিয়ে দিতে হবে খাদ্যতালিকা থেকে।

৪) পুষ্টিকর ও স্বাস্থ্যকর খাদ্য ও পানীয়ের অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে।

৫) স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাসে উৎসাহ দিতে হবে।

৬) সঠিক ওজন বজায় রাখতে হবে।

বয়ঃসন্ধির বালিকাদের জন্যে প্রয়োজনীয় পুষ্টি খাদ্যাভ্যাস বয়ঃসন্ধির বালকদের প্রয়োজনীয় পুষ্টি খাদ্যাভ্যাস
এনার্জি — এনার্জি সোর্সের জন্য প্রোটিন।
মাংস পেশির বৃদ্ধির জন্য ক্যালসিয়াম ও আয়রন।দিনে পাঁচবার সবজি ও ফল খাদ্যতালিকায় রাখতে হবে।
জিঙ্ক ও ফোলেট সমৃদ্ধ খাদ্য খেতে হবে — রুটি, দানা জাতীয় খাদ্য, দুধ,মাংস ইত্যাদি।
প্রয়োজনীয় গুড ফ্যাট  এবং তেল খাদ্যতালিকায় রাখতে হবে।
উচ্চ ক্যালরি সমৃদ্ধ।
উচ্চ প্রোটিন সমৃদ্ধ।
জল ও স্বাস্থ্যকর তরল।
বয়ঃসন্ধির সময়ে যারা খেলাধুলার সাথে যুক্ত তাদের সঠিক ওজন ধরে রাখতে হয় নিরামিষ খাদ্যও ভালো পুষ্টি উপাদানের যোগান দেয়।
যাঁরা ডিম বা অন্যান্য দুগ্ধজাত খাবার খান না (ভেগান) তাঁদের ক্যালসিয়াম, ফসফরাস,আয়রন ও Vil—B12 ইত্যাদি পুষ্টির পরিমান ও চাহিদা পূরণ করতে নিউট্রিশনাল সাপ্লিমেন্ট খেতে হবে। 

বয়ঃসন্ধি হল শৈশব ও প্রাপ্তবয়স্কের ভেতর সংযোগের সময়। এইসময় খেয়াল রাখতে হবে —

  • পুষ্টিকর খাদ্যাভ্যাস গড়ে তোলা।
  • খাদ্যাভ্যাসের ভুলগুলো শুধরে নেওয়া।

এটাই হল সেই সময় যখন (১০—১৩ বছর) বিশেষ করে মেয়েদের ভেতর পিউবার্টি শুরু হয়।

বয়ঃসন্ধির সময়ে তাই খাদ্যাভ্যাসে বিশেষ পুষ্টির দিকে খেয়াল রাখতে হবে, যাতে শরীরে ঘটে চলা পরিবর্তন সত্ত্বেও শরীরের বৃদ্ধি সঠিক ভাবে হয় এবং ভবিষ্যতের শারীরিক সমস্যার থেকে শরীর কে রক্ষা করা যায়।

সমস্ত বয়ঃসন্ধির বালক বালিকাদের মা—বাবাদের তাদের সন্তানদের খাদ্য ও পুষ্টির দিকে খুব নজর দিতে হবে।

অপুষ্টি বয়ঃসন্ধির বালক বালিকাদের ভেতর খারাপ প্রভাব ফেলে
  • তাদের সম্পূর্ণ সৃজনশীলতা ও মনো্যোগের সাথে শেখার ও কাজে বাধা দেয়।
  • টিনএজ মায়েদের জন্য গাইনোকোলজিকাল সমস্যা দেখা যায়।
  • ভবিষ্যতের শিশুর স্বাস্থ্যকর বৃদ্ধিতে বাধা ঘটে।
  • সঠিক হাড়ের গঠন ও বৃদ্ধিতে বাধা ঘটে।

Recent Posts

আমাদের সাম্প্রতিক পোষ্ট গুলি দেখতে ক্লিক করুন

Cancer (ক্যান্সার)

ক্যান্সারের লক্ষণ ও তার চিকিৎসা

এন্ডোমেট্রিয়াল ক্যান্সার বা জরায়ুর ক্যান্সার- লক্ষণ ও চিকিৎসা

সমগ্র বিশ্বে, মহিলাদের মধ্যে যত রকম ক্যান্সার হয় তাদের মধ্যে এন্ডোমেট্রিয়াল ক্যান্সার বা জরায়ুর ক্যান্সার চতুর্থ । যদিও ভারতীয় মহিলাদের মধ্যে এই …

থাইরয়েড ক্যান্সার এর লক্ষণ

 থাইরয়েড গলার গোড়ায়  একটি ছোট, প্রজাপতি আকৃতির গ্রন্থি  যেখান থেকে  ট্রাইওডোথাইরোনিন (T3) এবং থাইরক্সিন (T4) হরমোন ক্ষরিত হয় এবং শরীরের বিভিন্ন বিপাকীয় …